Tuesday, September 27, 2022
spot_img
HomeখবরGTA Election উৎসবের আমেজে সম্পন্ন পাহাড়ের ভোট

GTA Election উৎসবের আমেজে সম্পন্ন পাহাড়ের ভোট

শর্মিলা মিত্র : GTA Election : দশ বছর পর পাহাড়ে অনুষ্ঠিত হল জি টি এ নির্বাচন। বৃষ্টিতে ভিজে উত্সবের মেজাজে ভোট দেন ভোটাররা। ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের বাইরে চোখে পড়ে ভোটারদের লাইন। প্রায় এক দশক পর পাহাড়ে সম্পন্ন হয় জিটিএ নির্বাচন। পাহাড়ে জি টি এ নির্বাচনে উৎসবের আমেজে চলে ভোট গ্রহণ। রবিবার সকাল থেকেই দার্জিলিং-এ শুরু হয় বৃষ্টি। অবিরাম বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে ভোট গ্রহণ কেন্দ্র গুলিতে চোখে পড়ে ভোটারদের লাইন। গোর্খা টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের ৪৫ টি আসনে রবিবার সম্পন্ন হয় ভোট। মোট বুথের সংখ্যা ছিল ৯২২। এর মধ্যে স্পর্শকাতর বুথ ছিল ৫টি।

সব মিলিয়ে মোট প্রার্থী সংখ্যা ছিল ২৭৭। মোট ভোটার সংখ্যা, ৭ লক্ষ ৩২৬। নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন প্রায় সাড়ে ৩ হাজার পুলিশ। জিটিএ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কার্যত বলা যায় দুই ভাগে ভাগ হয়ে যায় পাহাড়ের রাজনৈতিক দল গুলি। এক দিকে যেখানে প্রথম থেকেই জি টি এ নির্বাচনের বিরোধিতা করে পাহাড়ের অন্যতম দল গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। জি টি এ নির্বাচনের বিরোধিতা করেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা প্রধান বিমল গুরুং। জি টি এ নির্বাচনের প্রতিবাদে অনশনও করেন বিমল গুরুং। তারই পাশাপাশি পাহাড়ের জি টি এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেনি বিজেপি, জিএনএলএফ-এর মত দলও।

GTA Election উৎসবের আমেজে সম্পন্ন পাহাড়ের ভোট

অন্য দিকে, এই প্রথম পাহাড়ের ভোটে পুরসভা ভোটে জয়ী হবার পর জিটিএ নির্বাচনে ৪৫টি আসনের সবকটি আসনে প্রার্থী দেয় হামরো পার্টি। ৩৫ টি আসনে প্রার্থী দেয় অনিত থাপার পার্টি গোর্খা প্রজাতান্ত্রিক মোর্চা। ১০টি আসনে প্রার্থী দেয় টিএমসি। জিটিএ নির্বাচনে ১১ টি আসনে প্রার্থী দেয় সিপিএম। এবং কংগ্রেস প্রার্থী দেয় ৫টি আসনে। সব মিলিয়ে পাহাড়ে মোট ৯২২টি বুথে চলে ভোট গ্রহণ। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি ভোট দেন গোর্খা প্রজাতান্ত্রিক মোর্চা প্রধান অনিত থাপা।

জিটিএ নির্বাচন নিয়ে অনিত থাপার মন্তব্য, শিলিগুড়ি বা সমতলে সব সিস্টেমেটিক থাকলেও পাহাড়ে কিছুই সিস্টেমেটিক নয়। এইজন্য বার বার আন্দোলন হয় পাহাড়ে। একইসঙ্গে তাঁর মন্তব্য, জিটিএকেই সবার সমর্থন করা উচিত। একই সঙ্গে ভোট দেন পাহাড়ের তৃণমূল নেতা বিনয় তামাংও। জিটিএ নির্বাচনে জয়ের বিষয়ে ১০০ শতাংশ আশাবাদী তিনি। এর পাশাপাশি বিমল গুরুং-এর ভোট বয়কট প্রসঙ্গে বিনয় তামাং জানান, গুরুং-এর দল থেকে বহু নেতা-কর্মীই নির্দলে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু তাদের শোকজ করা হয়নি বলেও দাবি করেন পাহাড়ের তৃণমূল নেতা বিনয় তামাংও। পাহাড়ে ভোটের দিন ভোট থেকে বিরত থাকেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা প্রধান বিমল গুরুং। জিটিএ ভোট থেকে বিরত থাকেন বিমল গুরুং-এর দলের রোশন গিরি-সহ অন্যান্য নেতারাও।

সম্পর্কিত খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Stay Connected

2,300FansLike
3,210SubscribersSubscribe

তাজা খবর

Recent Comments

- Advertisment -